Headlines News :
Home » » আহলান-সাহলান মাহে রমজান .....মোঃ আব্দুল ফাত্তাহ

আহলান-সাহলান মাহে রমজান .....মোঃ আব্দুল ফাত্তাহ

Written By zakigonj news on রবিবার, ২১ জুন, ২০১৫ | ৬:০৮ PM

॥ মোঃ আব্দুল ফাত্তাহ ॥

আহলান-সাহলান মাহে রমজান। আমাদের নিকট গত ১৮ জুন বৃহস্পতিবার সন্ধা থেকে হাজির হয়েছে পবিত্র রমজান মাস। দুনিয়ার কোটি কোটি মুসলমান নির্ধারিত নিয়ম মেনে দীর্ঘ এক মাসের জন্য রোজা রাখা শুরু করেছেন। মুসলমানদের দীর্ঘ এক মাস ভাবগম্ভীর পরিবেশে রোজা রাখার তৌফিক দানের জন্য শুরুতেই মহান রাব্বুল আ’লামীনের নিকট কামনা করছি। আমরা জানি, সাওম বা রোজা এর শাব্দিক অর্থ বিরত থাকা বা সংযত থাকা। ব্যাপক অর্থে সিয়াম সাধনা; অর্থাৎ কোন কিছু পাওয়ার জন্য সাধনা করা। মহান আল্লাহপাক ঘোষণা দিয়েছেন কবুল রোজার বদলা তিনি গোলামদেরে (বান্দাহ) নিজ হাতে দিবেন। অন্যকথায়, প্রকৃত রোজাদাররা আল্লাহর দিদার লাভ করবে। চট্রিখানি কথা নয় বন্ধুগণ। মহান আল্লাহ রোজাদারদেরকে নিজ হাতে পুরস্কার দেবেন। বিষয়টি একবার ভেবে দেখুন! সামান্য একজন জনপ্রতিনিধি বা একজন হাই অফিসিয়লের হাত থেকে কোন কিছু পেতে হলে কাটফাঁটা রোদ, এক আকাশ বৃষ্টি মাথায় নিয়ে সারাদিন অপেক্ষা করে আমরা হয়তো কিছু পাই। কোন কোন ক্ষেত্রে পাওয়াও যায়না। আর সাধারন পাবলিক হিসেবে একজন মন্ত্রী বা প্রাইম মিনিষ্টারের সাথে দেখা করার খায়েশ যদি আপনার মনে জাগে তাহলে আদৌ তা বাস্তবায়ন হবে কিনা সন্দেহ। অথচ : আমার আল্লাহ স্বেচ্ছায় নিজের গরজে খোঁজে খোঁজে তার গরীব-দুঃখি ও সকল বান্দাদের হাতে নিজে পুরস্কার তুলে দেবেন। এ ক্ষেত্রে মুসলমান কারো কোন সন্দেহ আছে? কিন্তু এ পুরস্কার পেতে হলে যথাযথ নিয়ম মেনে আপনাকে সে মোতাবেক কাজ করতে হবে। ওয়াজ আমরা সবাই জানি। তাই বেশী বলা ঠিক হবেনা। নিচের কয়েকটি বিষয়ে মনে রাখার জন্য সবিনয় অনুরোধ করবো। ০১। শরীর ও মনকে পবিত্র করে খালিছ নিয়তে রোজা রাখা। ০২। রোজা রেখে আপনার শরীর যতটুকু পরিশ্রম করতে পারে করুন তাতে বাঁধা নেই। শুধু এর ফাঁকে সময়মত নামাজ আদায় করা। পারতপক্ষে জামাতে নামাজ ছাড়া ঠিক না। ০৩। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যে কাজ তা হলো: গীবত অর্থাৎ পরনিন্দা না করা। কেননা এটি রোজার সবচেয়ে বেশী ক্ষতি করে। পরনিন্দা করা নিজের মৃত ভাইয়ের মাংস ভক্ষণ করার শামিল। ০৪। রোজা রেখে চরম ধৈর্য্যরে পরিচয় দেয়া। বিভিন্ন কারণে বিশেষ করে ক্ষুধার কারণে রোজাদারের মেজাজ স্বাভাবিকভাবে কিছুটা খারাপ থাকে। তাই যেকোন কারণে রাগ উঠে গেলে সর্বশক্তিমান আল্লাহর কথা স্মরণ করে রাগ থামিয়ে ফেলা উচিত। কেউ কেউ রাগান্বিত হয়ে মারামারি পর্যন্ত বাঁধিয়ে দেন। এরকম পরিস্থিতির সৃষ্ঠি হলে যে মারামারি লাগাতে চায় তাকে একথা বলা ভাই আমি রোজাদার। ইসলামের স্বর্ণযুগে রোজা মাসে যুদ্ধ নিষিদ্ধ ছিল। ০৫। দৈনন্দিন কাজ শেষে যেটুকু সময় পাওয়া যায় সে সময় নফল ইবাদাত, ক্বোরআন তেলাওয়াত, শেষ রাতে তাহাজ্জুদের নামাজ আদায় করা (রমজান ছাড়া এ সুযোগ সহজে মিলেনা) ও অন্যান্য ইবাদাত বান্দেগী করে আল্লাহর নৈকট্য অর্জনের চেষ্ঠা করা। ০৬। সারাদিন রোজা রেখে বাহারী কোন কিছু দ্বারা ইফতার করার কোন প্রয়োজন নেই। নরম, স্বাস্থ্যসম্মত ও কম মসলাযুক্ত খাবার দ্বারা ইফতার করা দরকার। পরিমিত বিশুদ্ধ পানি পান করা দরকার। কেননা সারাদিন রোজা রেখে শরীরে পানিশূন্যতা দেখা দেয়। ০৭। একটা কথা আমরা সবাই জানি রোজাদারের দুই খুশি। এক : ইফতারের সময় আল্লাহ গুনাহ মাফ করে দেন। ( এরচেয়ে বেশী খুশি কি হতে পারে), দুই : রোজা শেষে প্রকৃত রোজাদারদের আল্লাহ মাফ করে দেন। মূলত; তাদের জন্যই ঈদের খুশি। আবলা-ছাবলাদের জন্য নয়। ০৮। সারাদিন রোজা রেখে ইফতার করার পর শরীর অবশ হতে পারে। ঘুম ঘুম ভাব আসতে পারে। এ থেকে শরীরটাকে একেবারে হালকা করার প্রধান মাধ্যম তারাবিহ এর ২০ রাকাত নামাজ। অনেকের বিরক্তি এসে যায়। কিন্তু আপনি নিয়মিত তারাবিহ এর নামাজ পড়ে দেখেন আপনার শরীর পুরোপুরি উপযোগি। ঘুম ঘুম ভাবও নেই, অবশ ভাবও নেই। এটা রাসুল (সা:) এর পক্ষ থেকে বড় এক উপহার (সুন্নাত)। ০৯। রোজা রাখলে পেটে ক্ষুধা লাগে। এজন্য গরিব ও অসহায়রা কিভাবে দিনাতিপাত করে বুঝা যায়। তাই, গরিব ও অসহায়দের প্রতি সদয় হতে রোজা শিক্ষা দেয়। ১০। বছরের পরবর্তী ১১ মাস কিভাবে আল্লাহর ইবাদত-বন্দেগী করে তার নৈকট্য লাভ করা যায় রমজান সেই শিক্ষা দেয়, সেই সিয়াম বা সাধনা শেখায়। এজন্য রমজান শেষে আল্লাহর ইবাদত-বন্দেগীতে মশগুল থাকতে হবে। মনে রাখতে হবে ইবাদত শুধু রমযান মাসের জন্য আসেনি। ১১। আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় রয়েছে সেদিকে গেলাম না লেখার পরিধি বড় হয়ে যাচ্ছে দেখে। মহান আল্লাহ পাক আমাদের সঠিক নিয়ম ও ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ পরিবেশে সকল সক্ষম মুসলমানদের রমজানের রোজা রাখার সুযোগ করে দিয়ে আল্লাহর দিদার বা সাক্ষাৎ লাভের সুযোগ করে দিন। আমীন।
লেখক : মোঃ আব্দুল ফাত্তাহ, সার্টিফিকেট অফিসার-জকিগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, সিলেট। মোবাইল : ০১৯১৭৪৩৫০৪৭ 
Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad