Headlines News :
Home » » জকিগঞ্জে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন

জকিগঞ্জে একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন

Written By zakigonj news on শনিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫ | ৮:৪৯ PM

স্টাফ রিপোর্টার
জকিগঞ্জে একুশের প্রথম প্রহরে পৃথক দু’টি শহীদ মিনারে ভাষা আন্দোলনের শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধা নিবেদন করে উপজেলাবাসী। গতকাল ২০ ফেব্র“য়ারী শুক্রবার রাতে নিস্তব্ধতা ভেঙ্গে উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের পদভারে জেগে উঠে স্মৃতির মিনার। বিনম্র শ্রদ্ধা, গভীর ভালোবাসা ও পরম মমতায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ও শহীদ দিবসে উপজেলা পরিষদ শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন করা হয়। রাত ১২-০১ মিনিটে একুশের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারের বেদীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপজেলা চেয়ারম্যান ইকবাল আহমদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার টিটন খীসাসহ অফিসারবৃন্দ। এরপর সহকারী পুলিশ সুপার জ্যোর্তিময় সরকারের নেতৃত্বে জকিগঞ্জ-বিয়ানীবাজার সার্কেল কার্যালয়ের পুলিশ সদস্যরা পুস্পস্তবক অর্পন করেন। একই সময় জকিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক ফারুক, উপ-সহকারী মনিরুজ্জামান, কাউন্সিলর হোসনে জাহান রিনা ও ময়নুল হক রাজু পুস্পস্তবক অর্পন করেন। এছাড়া উপজেলা পরিষদ শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন করে সততা মহিলা সমবায় সমিতি নামে একটি সংগঠন। অপর দিকে জকিগঞ্জ পাবলিক লাইব্রেরী প্রাঙ্গনে অবস্থিত শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পন করেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কামান্ড ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এবং অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ শহীদ মিনারে শুরুতে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার হাজী খলিল উদ্দিনের নেতৃত্বে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কামান্ড পুস্পস্তবক অর্পন করেন। এরপর ক্রমান্বয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব লোকমান উদ্দিন চৌধুরী, সাধারন সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকিম হায়দার ও মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ, জকিগঞ্জ পৌর যুবলীগের সভাপতি আব্দুস সালাম ও যুগ্ম সম্পাদক আজমল হোসেনের নেতৃত্বে যুবলীগ নেতৃবৃন্দ পুস্পস্তবক অর্পণ করেন। একই সাথে উপজেলা ছাত্রলীগ, সেচ্ছাসেকলীগ, শ্রমিকলীগ, পৌরসভা আওয়ামীলীগ ও বার্ণালী ক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তবে এবারের ভাষা দিবসের প্রথম প্রহরে উপজেলা বিএনপি ও জাতীয় পার্টিকে পুস্পস্তবক অর্পণ করতে দেখা যায়নি। জানা যায়,  ১৯৫২ সালের একুশের এই দিনটিতে মাতৃভাষা বাংলার দাবীতে তৎক্ষালিন পুর্ব পাকিস্তানের রাজপথ উত্তাল হয়ে উঠে। পাকিস্তানি শাসকদের হুমকি-ধমকি আর রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে ১৪৪ ধারা ভেঙে মাতৃভাষার মর্যাদা ও অধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে পথে নেমে এসেছিল নানা বয়সী অসংখ্য মানুষ। বজ্রকণ্ঠে আওয়াজ তুলেছিল, ‘রাষ্ট্রভাষা বাংলা চাই’। গুলি চালানো হলো মিছিলে। সালাম, বরকত, রফিক, শফিক, জব্বারসহ বাংলা মায়ের অকুতোভয় সন্তানদের তাজা রক্তে রঞ্জিত হলো দেশের মাটি। ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার ওই আন্দোলনের পথ ধরে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে অর্জিত হয় স্বাধীনতা। ভাষার জন্য বাঙালির এই আত্মদানের দিনটিকে ১৯৯৯ সালে ইউনেসকো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে বাঙালির এই আত্মত্যাগের দিনটি তাই এখন আর বাংলাদেশেই সীমাবদ্ধ নয়, পালন করা হচ্ছে সারা বিশ্বে। বাংলাদেশের প্রত্যান্ত অঞ্চলে অবস্থিত শহীদ মিনার গুলো এদিনে ফুলে ফুলে ঢাকা পড়ে।
Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad