Headlines News :
Home » » জকিগঞ্জে অনলাইন গণমাধ্যমের যাত্রা ॥ গোড়ার কথা

জকিগঞ্জে অনলাইন গণমাধ্যমের যাত্রা ॥ গোড়ার কথা

Written By zakigonj news on মঙ্গলবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৫ | ১:২৭ PM

॥ রহমত আলী হেলালী ॥

জকিগঞ্জে এখন প্রেস মিডিয়াকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছে অনলাইন গণমাধ্যম। ইন্টারনেট প্রযুক্তিকে ব্যবহার করে এই মাধ্যম তথ্যকে নিমিষেই ছড়িয়ে দিচ্ছে সারা বিশ্বে। অনলাইন মাধ্যম মানেই অবাধ ও দ্রুতগামী তথ্য প্রবাহ করা। ২০১০ সাল পর্যন্ত জকিগঞ্জে কোন অনলাইন গণমাধ্যম যাত্রা করেনি। তখন পর্যন্ত এ উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের অনেকেই অনলাইন গণমাধ্যমের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে চিন্তা করেননি। পাঠকদের পক্ষ থেকে সাংবাদিকদের নিকট কোন অনলাইন নিউজ পোর্টাল চালু করার আবদার করা হয়নি। জকিগঞ্জে তখন সাংবাদিকরা শুধুমাত্র দিনের প্রাপ্ত সংবাদ নিজ নিজ দৈনিকে পাঠানোর জন্য বিকালে জকিগঞ্জ পৌর শহরে বা অন্য কোন সুবিধাজনক স্থানে গিয়ে কম্পিউটারের দোকানে আশ্রয় নিতেন। এদের অনেকেই তখন ইন্টারনেট ব্রাউজিং, ইমেইল চেক করা, ইমেইল পাঠানো বা কম্পিউটারে লিখতে পারতেন না। তবে কম্পিউটারের দোকানের মালিক হওয়ায় সুযোগে সাংবাদিক শ্রীকান্ত পাল এক্ষেত্রে এক ধাঁপ এগিয়ে ছিলেন। তাই তার মাধ্যমে সাংবাদিকদের একটি বিশাল অংশ প্রতিদিন ইমেইল করে নিজ নিজ দৈনিকে সংবাদ পাঠাতেন। এ সময় আমিসহ সাংবাদিক আল মামুন, এনামুল হক মুন্না ও কে এম মামুন কম্পিউটারে অনেকটা লেখালেখি ও ইন্টারনেট ব্রাউজিং করতে পারতাম। নিজের কম্পিউটার না থাকায় চর্চাটা কম হলেও শ্রীকান্ত দাদার এখানে এসে আমরা অনেকটা পাকাপোক্ত হয়ে যাই। এক্ষেত্রে আমাদের পেছনে পড়ে যান জকিগঞ্জে কর্মরত সিনিয়র অনেক সাংবাদিক। তারা নিজেদের থেকেই কম্পিউটারে লিখা বা ইন্টারনেট ব্রাউজিং শিখেননি। ২০১১ সাল পর্যন্ত জকিগঞ্জে এভাবেই চলে সাংবাদিকতা। সোজা কথা ২০১১ সাল থেকে যত পেছনে যাবেন কম্পিউটার টাইপ ও ইন্টারনেট সম্পর্কে জ্ঞান রাখেন এমন সংবাদকর্মীর সংখ্যা তত কম পাবেন। তখন ২/৩ জন সাংবাদিক ছাড়া আর কারও ফেসবুক একাউন্ট ছিলনা। যাদের ফেসবুক একাউন্ট ছিল তারাও ইন্টারনেটের ধীরগতির কারণে ঠিক মতো ব্যবহার করতে পারতেন না। সে কারণে তখন জকিগঞ্জের নামে অনলাইন নিউজ পোর্টাল করা কল্পনা ছাড়া আর কিছুই ছিলনা। এনিয়ে কোন দিন কাউকে কথা বলতেও শুনিনি। ২০১১ সালের মাঝামাঝি সময়ে আমি সিলেটে চলে আসলে কম্পিউটার নিয়ে বেশ চর্চা শুরু করি। নিয়মিত ফেসবুক ব্যবহার করতে থাকি। হঠাৎ একদিন ফেসবুকে ‘কানাইঘাট নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট টিকে’ নামে একটি নিউজ পোর্টালের লিঙ্ক দেখতে পাই। ক্লিক করে ওই লিঙ্কে ঢুকে নিয়মিত অবাক! সুন্দর একটি অনলাইন গণমাধ্যম। তখন আর দেরী না করে তাৎক্ষণিক ওই পত্রিকার সম্পাদককের মোবাইল নম্বার পত্রিকা থেকে নিয়ে ফোন করে জানতে চাই, এধরণের একটি নিউজ পোর্টাল জকিগঞ্জের নামে করতে কি করতে হবে এবং টাকা কত লাগবে? আমার আবেগ প্রবণ ফোনে ভদ্রলোক অত্যান্ত সুন্দর ভাষায় আমাকে জকিগঞ্জের নামে একটি অনলাইন গণমাধ্যম করতে কী কী প্রয়োজন তা বললেন। তার কথা থেকে আমার সাহস চলে আসে। আমি তাকে ‘জকিগঞ্জ নিউজ’ নামে একটি অনলাইন গণমাধ্যম করে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করি। যেমন কথা তেমন কাজ। মাসখানেকের মধ্যে তিনি ‘জকিগঞ্জ নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট টিকে’ নামে একটি সুন্দর সাইট তৈরী করে দিলেন। তখন ২০১১ সালের অক্টোবর মাস। এবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পালা। এক মাস হাতে রেখে উদ্বোধনের তারিখ ঠিক করলাম ১৬ ডিসেম্বর-২০১১ইং। উপজেলাব্যাপী প্রচার-প্রচারণা শুরু হলো। ১৫ই ডিসেম্বর উপজেলাব্যাপী মাইকিং হলো। পরদিন ১৬ই ডিসেম্বর বিকালে জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে বর্ণাঢ্য আয়োজনে পত্রিকাটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের তৎকালীন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শাব্বীর আহমদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এমরান হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা মোস্তাকিম হায়দার, সাজনা সুলতানা হক চৌধুরী, পৌর সভার মেয়র প্রয়াত আনোয়ার হোসেন সোনাউল্লাহ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার হাজী খলিল উদ্দিন ও জকিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সহ সভাপতি প্রভাষক আল মামুনসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। উদ্বোধনের রাতেই আমাকে অভিনন্দন জানিয়ে দেশ-বিদেশে অবস্থানরত জকিগঞ্জীদের নিকট থেকে বেশ কয়েকটি ফোন আসলো। এবার মনোবল আরেক ধাপ এগিয়ে গেল। তবে উদ্বোধনের সময় আমার মনোবল কিছুটা ভেঙ্গে পড়েছিল। কেননা জকিগঞ্জের শীর্ষ পর্যায়ের একজন জনপ্রতিনিধি আমাকে বলেন, “ ভাই কইলায় পত্রিকা বারইত, পত্রিকা কানও দেকিনা কেনে”। তখন আমি তাকে বলেছিলাম এটা কাগজের পত্রিকা না, এটা ইন্টারনেটে পাওয়া যাবে। উত্তরে তিনি বলেন, “অহ আচ্ছা ইতা কে পড়তো”। এ কারণে মনোবল নষ্ট হলেও শেষ পর্যন্ত রাতে অভিনন্দন পেয়ে আবার ঠিক হয়ে যাই। কিন্তু হায়! পরদিন কালিগঞ্জ বাজারে গিয়ে পড়লাম আরও বড় বিড়ম্বনায়। আমার পরিচিত বেশ কয়েকজন ছাত্রনেতা পত্রিকা খুঁজতে শুরু করলেন। আমি বললাম ভাই কিসের পত্রিকা? উত্তরে তারা বলেন শুনলাম ভাই আপনি একটি পত্রিকা বের করেছেন। আমি বললাম ভাই এটা কাগজের পত্রিকা না এটা ইন্টারনেটের পত্রিকা। এবার তারা মুখ বাঁকা করে বললেন, “ইন্টারনেট কানও ফাইতায় আর কানও পড়তায়”। সেদিন থেকেই আমি পরিকল্পনা করেছিলাম, জকিগঞ্জ থেকে একটি প্রিন্ট পত্রিকা প্রকাশের। সে অনুযায়ী পরের বছর অর্থাৎ ২০১২ সালের মাঝামাঝি সময়ে সরকারী ডিক্লারেশন নিয়ে ‘সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদ’ নামে একটি পত্রিকা বের করি। তবে অনলাইন পত্রিকা বন্ধ করিনি। প্রথম ৮/৯ মাস নিয়মিত জকিগঞ্জের প্রত্যান্ত অঞ্চলের প্রতিদিনের খবর আপডেট করি। পরবর্তীতে সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদ নিয়মিত প্রকাশ করতে গিয়ে কিছুদিন অনিয়মিত হয়ে পড়ি। এই ফাঁকে কয়েছ আহমদ ও আলম উদ্দিন নামের দুইজন ভার্সিটি পড়–য়া শিক্ষার্থী ‘জকিগঞ্জ বার্তা টুয়েন্টিফোর ডট কম’ নামে একটি অনলাইন পত্রিকা চালু করেন। এ পত্রিকায় সম্পাদক হিসেবে রাখা হয় বন্ধুবর এনামুল হক মুন্নাকে। এদিকে আমিও সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদ নিয়মিত প্রকাশের পাশাপাশি ‘জকিগঞ্জ নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম” এর নাম পাল্টিয়ে ‘জকিগঞ্জ সংবাদ ডট কম’ করে নিয়মিত অনলাইনে নিউজ আপডেট করতে শুরু করি। যা আজ অবধি অব্যাহত রয়েছে। অন্যদিকে গত বছরের শেষ দিকে বন্ধুবর সাংবাদিক আল মামুন ‘জকিগঞ্জসিলেট ডট কম’ নামে আরেকটি অনলাইন পত্রিকা চালু করেন। বর্তমানে তিনি সাইটটির নাম পরিবর্তান করে রেখেছেন ‘জকিগঞ্জ নিউজ টুয়েন্টিফোর ডট কম’। এছাড়া অতি সম্প্রতি সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ কানাইঘাটের ডাক অনলাইনে যাত্রা শুরু করেছে এবং শীঘ্রই সাংবাদিক আল হাসিব তাপাদার ‘জকিগঞ্জ টুডে ডট কম’নামে আরেকটি অনলাইন পত্রিকা চালু করছেন। সব মিলিয়ে জকিগঞ্জে এখন অনলাইন পত্রিকার জয় জয়কার। আজ এ সংবাদ মাধ্যমগুলো বিশ্বব্যাপী জকিগঞ্জীদের মধ্যে নতুন জাগরণ সৃষ্টি করেছে।্য ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বৃদ্ধির ফলে জকিগঞ্জে এখন অনলাইন পত্রিকাগুলোর মধ্যে নিয়মিত প্রতিযোগিতা হচ্ছে। তাৎক্ষণিক খবর, বিদ্যুৎগতিতে আপডেটসহ ক্রমবর্ধমান পাঠক-প্রত্যাশা পূরণের প্রতিযোগিতায় এগিয়ে যাওয়ায় জকিগঞ্জে এখন রমরমা অবস্থা অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোর। ঈর্ষণীয় জনপ্রিয়তা একেকটি অনলাইনের। অনলাইন শুধু মুহূর্তের সংবাদ মুহূর্তে দিচ্ছে না। পাশাপাশি জাতীয় দিবস, রাজনীতি, অর্থনীতি-ব্যবসা, খেলাধুলা, মুক্তমত, বিনোদন, ধর্ম, স্বাস্থ্য, শিক্ষা, সাহিত্য, ফিচার, বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, সাফল্যগাথা-অর্জন সব বিষয়ে তথ্য-তত্ত্ব ও গবেষণালব্ধ বিশেষ প্রতিবেদন ও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করছে। যখনি ঘটনা তখনই পাঠকের কাছে পৌঁছে দিতে ২৪ ঘণ্টাই সজাগ-সচেতন থাকেন জকিঞ্জের অনলাইন সাংবাদিকেরা। সবসময় সচল তাদের মোবাইল, ক্যামেরা, ল্যাপটপ-কম্পিউটার। সোর্স, প্রকৃত ঘটনা ও কর্তৃপক্ষের বক্তব্য নিয়েই অনলাইন সাংবাদিকেরা দ্রুত প্রকাশ করে দেন খবর। এরপর সারাক্ষণ আপডেট দিতে থাকেন ‘কেন?’সহ অন্যান্য প্রাসঙ্গিক বিষয়-আশয়ের। সঙ্গে সঙ্গে সংবাদের কলেবর বাড়াতে থাকেন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞের মতামত, করণীয়, অতীত রেফারেন্স ইত্যাদি দিয়ে। এরপর ইন্টারনেট ভুবনের সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়া হয় সংবাদটির লিংক। এতে করে সর্বস্তরের পাঠকের নিকট সংবাদটি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ফলে এখন পাঠক মহলের নিকট অনলাইন পত্রিকার ব্যাপক জনপ্রিয়। আশপাশে কিছু ঘটলে পাঠকরা এখন সবার আগে অনলাইন সাংবাদিকদের তথ্য দেন। আবার কিছুক্ষণের মধ্যে মোবাইল বা কম্পিউটার দিয়ে ইন্টারনেটের খোঁজতে থাকেন খবরটি। এমনি দেখে আজ দারুন আনন্দ পাই। কেননা জকিগঞ্জে এই অনলাইন গণমাধ্যমের যাত্রাটা করেছিলাম আমি। তখন মানুষের নানা কথা শুনতে হলেও আজ তা আর নেই। আমি মনে করি আগামীতে জকিগঞ্জে অনলাইন সাংবাদিকতা এগিয়ে যাবে দূর-বহুদূর। দোয়া করি জকিগঞ্জে অনলাইন সাংবাদিকতায় বিপ্লব ঘটুক।
লেখক : প্রধান সম্পাদক-সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদ ও জকিগঞ্জের প্রথম অনলাইন নিউজ পোর্টালের রূপকার।

Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad