Headlines News :
Home » » জকিগঞ্জবাসী ২০১৪ সালে যাদের হারালেন

জকিগঞ্জবাসী ২০১৪ সালে যাদের হারালেন

Written By zakigonj news on সোমবার, ৫ জানুয়ারী, ২০১৫ | ৩:৪৬ PM

স্টাফ রিপোর্টার
বিদায়-২০১৪। প্রকৃতির নিয়মেই দিন আসে দিন যায়। সময়ের আবর্তে যে নতুন আনন্দের বার্তা নিয়ে আসে তা-ই আবার পুরনো হয়ে জমা হয় কালের অন্ধকারে। আমরা কেবল দেখি। নতুনকে আনন্দে বরণ করি। পুরনোকে দেই বিদায়। ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে ২০১৫ সাল। সদ্য বিদায় হওয়া বছরটিতে শত আনন্দ বেদনার মধ্যে জকিগঞ্জ থেকে আমরা কয়েকজন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে হারালাম। যারা নিজ নিজ ক্ষেত্রে ছিলেন খ্যাতিমান। তন্মেধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিলেন জকিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের দীর্ঘদিনের কান্ডারী ও জকিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আনোয়ার হোসেন সোনাউল্লাহ। তিনি দুরারোগ্য ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে গত বছরের ২০ জুলাই রোববার বেলা ২টা ৩০ মিনিটের সময় জকিগঞ্জ পৌর শহরের পিরেরচক গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি ইন্তেকাল করেন। এরমাত্র ৩ দিন আগে ১৭ জুলাই বৃহস্পতিবার সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জকিগঞ্জের সুলতানপুর ইউনিয়নের ৪ বারের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান আছদ্দর আলী ছই মিয়া ইন্তেকাল করেন। বছরের শেষ দিকে গত ১৬ ডিসেম্বর মঙ্গলবার ভোর সাড়ে ৬টায় জকিগঞ্জের মানিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মুহাম্মদপুর গ্রামের প্রবীণ মুরব্বী আব্দুর রকিব (খখাই মিয়া) সিলেট নগরীর একটি ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। এর কিছুদিন পর গত ২৯ ডিসেম্বর সোমবার রাত ২টার দিকে সিলেট এম.এ.জি.ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে জকিগঞ্জের গণিপুর গ্রামের প্রবীণ চিকিৎসক ডা. মঈজ উদ্দিন চৌধুরী ইন্তেকাল করেন। গত বছরের ১৩ অক্টোবর সোমবার বিকাল সাড়ে ৩ ঘটিকার সময় বার্ধ্যক্যজনিত কারণে সিলেট শহরের একটি বাসায় জকিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি পৌর এলাকার আনন্দপুর গ্রামের শফিকুর রহমান শফই মিয়া ইন্তেকাল করেন। একই দিন বিকাল ৩ ঘটিকার সময় জকিগঞ্জের খলাদাফনিয়া গ্রামের তরুণ সমাজসেবী দেলোয়ার হোসেন চৌধুরী সুজা ইন্তেকাল করেন। ১৭ আগস্ট রোববার সকাল পৌনে ৭টায় কিডনীজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে জকিগঞ্জের থানাবাজার লতিফিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা শফিকুর রহমান নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। ২৮ মার্চ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টায় জকিগঞ্জের মনসুরপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক ফুলতলী গ্রামের ইমাদ উদ্দিন খান নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। ৭ এপ্রিল সোমবার রাত ১১টা ১৫ মিনিটের সময় বাধ্যক্যজনিত কারণে কাজলসার ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য কামালপুর গ্রামের ফখরুদ্দিন মেম্বার ইন্তেকাল করেন। ১৮ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে আটগ্রাম বাসষ্টেশনে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে উপজেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আপ্তাব উদ্দিন আলতা ইন্তেকাল করেন। ১৪ জুলাই সোমবার বিকাল ৩ ঘটিকার সময় জকিগঞ্জের কামালপুর গ্রামের বিশিষ্ট মুরব্বী মোঃ আব্দুল গফুর ইন্তেকাল করেন। ২৩ আগস্ট রাত পৌনে ১০টায় কালিগঞ্জ বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বর্ম্মন মিষ্টি ভান্ডার (বাবুর ঘর) এর স্বত্ত্বাধীকারী শ্রী সুধীর কুমার বর্ম্মন মারা যান। ২৯ নভেম্বর শুক্রবার সন্ধা সাড়ে ৫টায় সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রবীণ শিক্ষক জামুরাইল গ্রামের মাওলানা ফারুক আহমদ ইন্তেকাল করেন। ২৬ নভেম্বর বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে উপজেলা তালামীযের সভাপতি ইসলাম উদ্দিন চৌধুরীর পিতা অব.নায়েক সুবেদার জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী ইন্তেকাল করেন। ২৫ নভেম্বর মঙ্গলবার সকাল ৯টায় জকিগঞ্জের বাখরশাল গ্রামের প্রবীণ ব্যবসায়ী আব্দুল খালিক মুন্সি বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। ২৩ নভেম্বর রোববার দিবাগত রাত ৩টায় সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় জকিগঞ্জ সাব রেজিস্টারী অফিসের কোপিস্ট জকিগঞ্জের ভরণ গ্রামের রাসেল আহমদ ইন্তেকাল করেন। গত ২৯ ডিসেম্বর সোমবার রাত ১টায় জকিগঞ্জের ব্রাম্মণগ্রামের যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা কুটু মালাকার নিজ বাড়িতে মারা যান। একই দিন রাত ১২টায় জকিগঞ্জ পৌর শহরের পীরেরচক গ্রামের শতবর্ষী প্রবীণ ব্যবসায়ী চাঁন মিয়া ইন্তেকাল করেন। এছাড়া গত বছরে দৈনিক সিলেটের ডাকের নির্বাহী সম্পাদক আব্দুল হামিদ মানিকের পিতা মোঃ আব্দুল মতিন, সাংবাদিক এনামুল হক মুন্নার মাতা বদরুন নাহার, জকিগঞ্জের এওলাসার গ্রামের শিক্ষানুরাগী ও লেখক মরহুম আলহাজ্ব মহিউদ্দিন চৌধুরী, জকিগঞ্জের ভরণগ্রামের জামায়াত নেতা ক্বারী ছিদ্দিকুর রহমান, জকিগঞ্জের হানিফগ্রামের মারুফ আহমদ, জকিগঞ্জের কামালপুর গ্রামের ব্যবসায়ী আব্দুল হান্নান হানই মিয়া, জকিগঞ্জের সুপ্রাকান্দি গ্রামের ব্যবসায়ী রফিক আহমদ, জকিগঞ্জের হাতিডহর গ্রামের আওয়ামীলীগ নেতা নোমান উদ্দিন নমই, জকিগঞ্জ উপজেলা যুব সংহতির যুগ্ম আহবায়ক হাসনুর আলম চৌধুরীর পিতা আব্দুল মতিন চৌধুরী, জকিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারন সম্পাদক জাহাঙ্গির শাহ চৌধুরী হেলালের মাতা সালমা খাতুন চৌধুরী, সাপ্তাহিক জকিগঞ্জ সংবাদের প্রকাশক শরীফ মোঃ হোসাইন চৌধুরী তারেকের চাচা আখদ্দছ আলী চৌধুরী (আখই মিয়া) ও লন্ডন প্রবাসী আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী, কাজলসার ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মঈন উদ্দিন, জকিগঞ্জের কেরাইয়া গ্রামের প্রবীণ শিক্ষক মহিমা রঞ্জন বিশ্বাস, জকিগঞ্জের হাইল ইসলামপুর গ্রামের ব্যবসায়ী মোঃ বুরহান উদ্দিন, জকিগঞ্জ পৌরসভার নরসিংহপুর গ্রামের প্রবাসী বশির আহমদ, জকিগঞ্জের দরগাবাহার পুর গ্রামের প্রবীণ শিক্ষক আব্দুর রউফ, জকিগঞ্জের কেরাইয়া গ্রামের প্রবীণ শিক্ষক নিত্যনন্দ বিশ্বাস, জকিগঞ্জের কাজলসার ইউনিয়নের চারিগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হামিদ, জকিগঞ্জের বারহাল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মরহুম আব্দুল লতিফ চৌধুরীর ভাই প্রবীণ শিক্ষক মাইজুল ইসলাম চৌধুরী (কুরুম মাস্টার), জকিগঞ্জের কসকনকপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন লস্করের বড় ভাই আমেরিকা প্রবাসী গোলাম মোস্তফা লস্কর, জকিগঞ্জ পৌরসভার মাইজকান্দি গ্রামের প্রবীণ মুরব্বী মোঃ তফজ্জুল আলী তফই মিয়া,  উপজেলা আল ইসলাহ’র সহ সভাপতি মুহাম্মদপুর গ্রামের হাজী মুকাদ্দাস আলী, জকিগঞ্জের ইলাবাজ গ্রামের বাস শ্রমিক আব্দুল মনিক, জকিগঞ্জের কামালপুর গ্রামের তাবলীগ জামাত নেতা আব্দুর রহমান, একই গ্রামের বিএনপি নেতা জয়নাল হকের মাতা ছয়মুনন্নেছা সহ প্রায় দুই শতাধিক লোক হারায় জকিগঞ্জবাসী। 
Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad