Headlines News :
Home » » জকিগঞ্জে হঠাৎ বেড়ে গেছে চুরি-ডাকাতি!

জকিগঞ্জে হঠাৎ বেড়ে গেছে চুরি-ডাকাতি!

Written By zakigonj news on শুক্রবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ | ১১:১৮ PM

স্টাফ রিপোর্টার
জকিগঞ্জে হঠাৎ করে চুরি-ডাকাতি বেড়ে গেছে। সশস্ত্র ডাকাতদল বিভিন্ন বাড়িতে হামলা চালিয়ে লুটে নিয়েছে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালঙ্কারসহ লাখ লাখ টাকার মাল। আহত করেছে অনেক মানুষকে। অন্যদিকে অব্যাহত রয়েছে চুরির ঘটনাও। জানা যায়, গত ১ সেপ্টেম্বর রোববার রাতে জকিগঞ্জ থানার পার্শ্ববর্তী হাইদ্রাবন্দ গ্রামের প্রবাসী কবির আহমদের বাড়িতে দুর্ধষ ডাকাতি সংঘটিত হয়। এলাকাবাসী জানান, ঐ বাড়িতে কোন পুরুষ লোক না থাকার সুবাধে ডাকাত দল গভীর রাতে ঘরের ছিটকারী ভেঙ্গে প্রবেশ করে সবাইকে অস্ত্রের মূখে জিম্মি করে ফেলে। এ সময় ডাকাতরা ঘরে থাকা আলমারী ও শোকেস ভেঙ্গে মুল্যবান জিনিপত্রসহ ৬ তোলা স্বর্ণ ও ৩টি মোবাইল সেট লুট করে নেয়। যাওয়ার সময় প্রবাসী কবির আহমদের মা নাজমা বেগমের কান ছিড়ে স্বর্ণের দুল নিয়ে যায়। ঘটনা দেখে কবির আহমদের বোন ঝুমা ভয়ে চিৎকার দিলে ডাকাতরা তাকে দা দিয়ে মাথায় কোপ দেয়। নির্বিঘেœ ডাকাতি শেষে ডাকাতরা পালিয়ে গেলে ঘরের মহিলারা চিৎকার শুরু করলে এলাকাবাসী এগিয়ে এসে তাদের হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।
এদিকে এই ঘটনার মাত্র ১ দিনের মাথায় গত ২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাতে উপজেলার বারহাল ইউনিয়নের বুরহানপুর গ্রামে এক দুবাই প্রবাসীর বাড়িতে দুর্ধষ ডাকাতি সংঘটিত হয়। সূত্রে জানা যায়, প্রবাসী কলিম আহমদের বাড়িতে এ্যাম্বুলেন্স যোগে ডাকাতরা এসে কেসি গেইট ভেঙ্গে ঘরে প্রবেশ করে। ঘরে প্রবেশের পর ডাকাত দল কাটা রাইফেল ও দেশীয় অস্ত্র দেখিয়ে সবাইকে জিম্মি করে চোঁখ মুখ বেঁধে নেয়। এ সময় ডাকাতরা ঘরের সব ক’টি কোটা তছনছ করে আলমীরা ও শোকেস ভেঙ্গে ৪ তোলা স্বর্ণ, ৬টি মোবাইল সেট ও নগদ ৩২ হাজার টাকাসহ মূল্যবান জিনিষপত্র নিয়ে যায়।
অপরদিকে গত ৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার কাজলসার ইউনিয়নের আটগ্রাম বাসষ্টেশনের মামুন এন্টারপ্রাইজে নামক মোবাইলের দোকানে এক দুর্ধষ চুরি সংঘটিত হয়। দোকানের মালিক শিক্ষক আব্দুল হালিম জানান, গভীর রাতে চোরেরা রহস্যজনকভাবে দোকানে ভেন্টিলেটার ভেঙ্গে নগদ ৪ লাখ টাকা, ৫১টি মোবাইল সেট ও ৭৫ হাজার টাকার মোবাইল কার্ড নিয়ে যায়। এ সকল ঘটনায় জনমনে আতংক বিরাজ করছে। সচেতন মহল মনে করেন, চলতি মাসের ৪দিন যেতে না যেতে ২টি বড় ধরণের ডাকাতি ও ১টি দুর্ধষ চুরির ঘটনা সত্যিই উদ্বেগজনক বিষয়। আইন শৃংখলা বাহিনী তাৎক্ষণিক এসকল চোর ডাকাতদের লাগাম টেনে ধরতে না পারলে মানুষ চরম ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়বে। এ ব্যাপারে কাজলসার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও জকিগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদ ফোরামের সভাপতি এম.এ.রশীদ বাহাদুর বলেন, আমার আটগ্রাম এলাকার চুরি ঘটনাটি রহস্যজনক মনে হচ্ছে। তবে উপজেলা বাকি ডাকাতির ঘটনাগুলো সত্যিই দুঃখজনক। এহেন অবস্থার নিরসন না করলে জকিগঞ্জের আইন শৃংখলা ভেঙ্গে পড়বে। তাই এ ব্যাপারে প্রশাসনকে সজাগ দৃষ্ঠি রাখতে হবে। জকিগঞ্জ থানার ওসি জামশেদ আলম বলেন, আমি উল্লেখিত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বারহাল ও আটগ্রামের ঘটনাটি আমার নিকট রহস্যজনক মনে হয়েছে। তবে যাই হোক আমরা ঘটনা ক্লু উদ্ঘাটন করে দোষীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার চেষ্ঠা চালিয়ে যাচ্ছি।
Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad