Headlines News :
Home » » জকিগঞ্জ সেটেলমেন্ট অফিসে সংঘর্ষের ঘটনায় জকিগঞ্জ আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক আহমদসহ ২ জন কারাগারে

জকিগঞ্জ সেটেলমেন্ট অফিসে সংঘর্ষের ঘটনায় জকিগঞ্জ আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক আহমদসহ ২ জন কারাগারে

Written By zakigonj news on মঙ্গলবার, ১০ জুন, ২০১৪ | ৯:২৪ PM

প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও হরতাল পালিত

স্টাফ রিপোর্টার
জকিগঞ্জ উপজেলার বারঠাকুরী ইউনিয়নের দরিয়াপুর গ্রামের ফজলুল করীম তাপাদারের সাথে একই গ্রামের হেলাল আহমদ গংদের জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধ নিরসনের লক্ষ্যে এলাকায় সালিশ বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু সালিশ বৈঠকে তা সমাধান করা সম্ভব হয়নি। তাই ঐ জায়গা নিয়ে একটি আপত্তি মামলায় হাজিরা দিতে গত ২৭ মে মঙ্গলবার জকিগঞ্জ সহকারী সেটেলমেন্ট অফিসে আসেন উভয়পক্ষ। সেখানে শুনানীকালে ফজলুল করীম তাপাদারের পূত্র ইছামতি কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতি কামিল আহমদ তাপাদারের কথার জের ধরে উত্তেজিত হয়ে উঠে অপর পক্ষের কিছু লোক। এ নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হলে হেলাল গংদের পক্ষে অবস্থান নেন স্থানীয় কিছু ছাত্রলীগ নেতাকর্মী। অপরদিকে দরিয়াপুর থেকে আসা বেশ কয়েকজন লোক ফজলুল করীম তাপাদারের পক্ষে অবস্থান নেন। এতে বেশ কয়েকজন লোক আহত হন। এ ঘটনায় ফজলুল করীম তাপাদার এর পুত্র কামিল আহমদ তাপাদার বাদী হয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক আহমদসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১২জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২১। অপরদিকে একই দিনে হেলাল আহমদের ছোট ভাই কামাল আহমদ বাদী হয়ে ১১ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-২২। এদিকে কামিল আহমদ তাপাদারের দায়েরকৃত মামলায় গত ১ জুন রোববার জকিগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে বিবাদীর পক্ষের ১২ জন হাজির হলে আওয়ামীলীগ নেতা ফারুক আহমদকে রেখে বাকি ১১ জনের জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ আদালত। কিন্তু আদালতের ভেতর ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন বিচারকের সম্মুখে প্রতিবাদ করায় বিজ্ঞবিচারক তার জামিন নামঞ্জর করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন। তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার দায়ে আরো একটি মামলা হতে পারে বলে জানা যায়। অন্যদিকে উপজেলা আওয়ামলীগের যুগ্ম আহবায়ক ফারুক আহমদ ও ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেনকে কারাগারে প্রেরণের প্রতিবাদে জকিগঞ্জ চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত চত্বর থেকে তাৎক্ষণিক এক বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে জকিগঞ্জ পৌর এলাকা প্রদক্ষিণ করে এক প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়।  জেলা ছাত্রলীগের সাবেক গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সুবিনয় মল্লিকের সভাপতিত্বে ও ছাত্রলীগ নেতা সাবেল রেজার পরিচালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগ যুগ্ম আহবায়ক মারুফ বখতিয়ার খুররম, পৌর যুবলীগ অর্থ সম্পাদক ফয়েজ আহমদ, শ্রমিকলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল কাদির, ছাত্রলীগ নেতা আল হাছিব তাপাদার, জুনেদ আহমদ, গুলজার আহমদ, মিনহাজ আহমদ মিলাদ ও মোস্তফা আহমদ সহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। প্রতিবাদ সভা থেকে নেতৃবৃন্দ পরদিন সোমবার অর্ধদিবস হরতালের ডাক দেয়া হয়। পরদিন উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্ত প্রিকেটিং করা হলেও পুলিশি বাঁধায় তা অনেকটা ঢিলেঢালা হয়ে পড়ে।এ ব্যাপারে বাদী কামিল আহমদ তাপাদার বলেন, বিষয়টি আমরা নিজেদের মধ্যে। কিন্তু সেখানে ককটেল ফারুকের গ্র“প জড়িয়ে কেন আমাদের উপর আক্রমণ করে? এরপরও আমরা তাকে সালিশ মেনে তার অফিসে গেলে তিনি সেখানে কেন আমাদের উপর আক্রমণ করান? সে বিষয়টি আমরা মেনে নিতে পারছিনা। মামলার আসামী দৈনিক সিলেট বাণীর জকিগঞ্জ প্রতিনিধি আল হাসিব তাপাদার বলেন, আমি সংবাদ সংগ্রহের জন্য সেখানে গেলে আমার উপর কামিল গংরা আক্রমণ করে। পরবর্তীতে দেখা যায় তাদের মামলায় আমি আসামী। যা অত্যান্ত দুঃখজনক বিষয়। উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আটক ফারুক আহমদ বলেন, একটি আপত্তি মামলার হাজিরা দিতে এসে দু’টি পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে সহকারি সেটেলমেন্ট অফিসার পুলিশকে খবর দেন। একই সাথে আমাকে বিষয়টি আপোসে সমাধান  করে দিতে অনুরোধ করেন। উভয় পক্ষ বিচার মেনে চলে যায়। কিন্তু কুচক্রি মহলের ইন্দনে পড়ে দরিয়াপুর গ্রামের ফজলুল করিমের পুত্র কামিল আহমদ বাদী হয়ে আমিসহ ১০/১২ জনের বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক মামলা করেন। যা আমার বোধগম্য নয়।
Share this article :

0 মন্তব্য:

Speak up your mind

Tell us what you're thinking... !

ফেসবুক ফ্যান পেজ

 
Founder and Editor : Rahmat Ali Helali | Email | Mobile: 01715745222
25, Point View Shopping Complex (1st Floor, Amborkhana, Sylhet Website
Copyright © 2013. জকিগঞ্জ সংবাদ - All Rights Reserved
Template Design by Green Host BD Published by Zakigonj Sangbad